নারায়ণগঞ্জে সোনারগাঁয়ে স্বদেশ সিটিং সার্ভিস পরিবহনের একটি চলন্ত বাসে এক কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টায়,চালক আটক।

অর্থনীতি জনদুর্ভোগ পরিবেশ প্রবাস বাণিজ্য বাংলাদেশ বিজ্ঞান বিশ্ব রাজনীতি সমগ্র বাংলাদেশ স্বাস্থ্য
 মো:ইমরান: সোনারগাঁয়ে স্বদেশ সিটিং সার্ভিস পরিবহনের একটি চলন্ত বাসে এক কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার মেঘনা নিউটাউন এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।
এসময় জনগন গাড়ির চালককে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। পুলিশ বাসটি জব্দ করে থানা হেফাজতে নিয়ে যাওয়া হয় অভিযুক্ত চালক শামীম মিয়া উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের নানাখী মধ্যপাড়া গ্রাামের আব্দুুুর রব মিয়ার ছেলে।জানা যায়, উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের মেঘনা নিউটাউন শপিং কমপ্লেক্সের ব্যবসায়ীরা দোকান বন্ধ করে রাত সাড়ে ১০টার দিকে মার্কেটের সামনে গাড়ির জন্যে অপেক্ষা করছিল।এসময় স্বদেশ পরিবহনের একটি বাস (ঢাকা মেট্টো-ব-১১-৭২৬৫) দেখে থামাতে বললে গাড়িটি আরো দ্রুতবেগে চালানো হয়। এসময় তারা বাস থেকে এক কিশোরীর বাঁচাও বাঁচাও চিৎকার শুনতে পায়।পরে জনগন গাড়িটি থামিয়ে দেখতে পায় হেলপার গাড়ি চালাচ্ছে এবং চালক কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা করছে। তখন জনগন কিশোরীকে উদ্ধার করে চালককে গণধোলাই দিয়ে পুুুলিশে সোপর্দ করে। এ সুযোগে হেলপার পালিয়ে যায়।সোনারগাঁ থানার এসআই তাওহিদ উল্লাহ জানান, স্বদেশ বাসে ধর্ষণের খবর পেয়ে মেঘনা নিউটাউনে গিয়ে জনগনের হাত থেকে ধর্ষক ও গাড়িটি আটক করেছি। ধর্ষক শামীম মিয়া উপজেলার নানাখী মধ্যপাড়া গ্রামের আব্দুুর রব মিয়ার ছেলে। আর মেয়েটি মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলার বালুয়াকান্দি গ্রামে থাকে।
সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক চালক ও বাসটি থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। চালকের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *